আজ রবিবার, ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

‘দল নৌকার ভোট পাওয়ার সুযোগ দিয়েছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী এড. তৈমূর আলম খন্দকার বলেছেন, নাসিকে সাড়ে পাঁচ লক্ষের মত ভোট আছে। ক্যান্ডিডেট হিসেবে আমি সকলের ভোট চাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন তৈমুর আলম খন্দকার জেতার মত লোক। তিনি বিদেশি সাংবাদিকদের কাছে একথা বলেছেন। অতএব আমার একটা আত্মবিশ্বাস আছে। আমি সকলের ভোট চাই। কে ভোট দিবে কে দিবে না এটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। কেউ ভোট দিলে আপনি বাধা দিতে পারবেন না আর কেউ না দিলে আমি তাকে জোর করতে পারবো না। এটা সম্মানিত ভোটারদের ইচ্ছা। আমার ভোট আমি দেব যাকে খুশি তাকে দেব। এই বিশ্বাস নিয়ে আমাকে চলতে হবে। আমার বিশ্বাস লোকে আমাকে ভোট দিবে। বিগত পঞ্চাশ বছরে আমার কোন গণবিরোধী ভূমিকা নেই।

শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) সকালে নাসিক ২৫ নং ওয়ার্ডে (বন্দর) গণসংযোগে যাবার সময় নবীগঞ্জ ঘাটে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি।
তিনি বলে, বাংলাদেশের জনগণ স্থানীয় নির্বাচন জাতীয় প্রতীকে পছন্দ করেনা। এটা বর্তমান সরকার করেছে ক্ষমতা কুক্ষিগত করার জন্য। কিন্তু জনগণ স্থানীয় নির্বাচন স্থানীয় ভাবেই বিষয়টা চিন্তা করে। আমি সকলের সমর্থন আশা করি। আমার দল ভাল কাজ করেছে। আমাকে নৌকার ভোট পাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে। আমি নির্বাচনের মাঠে সমান সুযোগ পাচ্ছি না। আমি আজকে একটা অভিযোগ দিয়েছি। আমার প্রধান নির্বাচনি এজেন্ট এটিএম কামালের দ্বারা। সেটা হল রাস্তায় তারা বড় বড় গেইট করছে। আমার পোস্টার ছিড়ে ফেলা হচ্ছে। সকাল থেকে তারা মাইকিং শুরু করে। বড় বিলবোর্ড করছে তারা। এইসব অভিযোগ দিয়েছি।

তিনি বলেন, বন্দরে তারা স্টেজ করে জনসভা করছে। এটা নির্বাচনি আচরনবিধির লঙ্ঘন। ইভিএম নিয়ে পুরো দেশবাসী শংকিত। ইভিএমে রেজাল্টটা রদবদল করা যায়। এটা সাধারণ মানুষই বলে। সাধারণ মানুষ যে জিনিসটা পছন্দ করে আমি সেটার পক্ষে। নির্বাচন কমিশনকে আমার নিরপেক্ষ মনে হচ্ছে না।
এসময় নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামালসহ তৈমূরের সমর্থকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ