আজ বুধবার, ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

তৈমূরের বহিষ্কার নিয়ে মুখ খুললেন হাফিজ

টি.আই.আরিফ

গত ১৮ জানুয়ারি বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে পরাজিত স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকারকে বিএনপি থেকে বহিস্কার করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকান্ডে জড়িত থাকার সুষ্পষ্ট অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির গঠনতন্ত্র মোতাবেক আপনাকে দলের প্রাথমিক সদস্য পদসহ সকল পর্যায়ের পদ থেকে নির্দেশক্রমে বহিস্কার করা হলো। তার বহিষ্কার নিয়ে গতকাল বিকেলে চাষাঢ়ায় কথা বলেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক পানিসম্পদ মন্ত্রী মেজর (অব.) হাফিজউদ্দিন আহমেদ (বীর বিক্রম)।

তিনি বলেন, বিএনপির এক ত্যাগী নেতা তৈমূর আলম খন্দকার। তিনি এখান (নারায়ণগঞ্জ সিটি) থেকে নির্বাচনে দাঁড়িয়ে ছিলেন, কেন তাকে বাঁদ (বিএনপি থেকে) দিয়েছে জানি না। এই নির্বাচনে অবশ্যই তৈমূর আলম বিজয়ী হয়ে ছিলেন, আপনারা ইভিএম’র কারচুপির মাধ্যমে তাকে পরাজিত করেছেন। শ্রমিক শ্রেণির লোকজন তাকে ভোট দিতো, আপনারা সেই দিন কারখানা খোঁলা রেখেছেন। তাই শ্রমিকরা ভোট দিতে আসতে পারে নাই। ভোটে কারচুপি করার জন্য যতো রকমের অপকর্ম আছে, সব আপনারা একের পর এক করে গেছেন। এই নিশি রাতের সরকার, বাংলাদেশের জনগণের সাথে অনেক প্রতারণা করেছে। এখন সেই হিসাব নেয়ার সময় এসে গেছে। সেই দিন বেশি দূরে নয়। সেই আলো দেখতে পারছি।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি এড. আবুল কালামের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সামাবেশে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি এডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি আতাউর রহমান মুকুল, সহ-সভাপতি এড. জাকির হোসেন, মহানগর মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক আয়শা আক্তার দিনা, স্বেচ্ছাসেবক দলেল সভাপতি আবুল কাউছার আশা, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনিসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। এদিকে হাফিজ তৈমূরের পক্ষে কথা বলায় বিএনপিতে নতুন মেরুকরণ শুরু হয়েছে। এছাড়া হাফিজের বিভিন্ন সময় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ