৩রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, দুপুর ১২:১৫

তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন বিজেপির সহ-সভাপতি

অনলাইন ডেস্ক:

বিজেপির কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি মুকুল রায় তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন। শুক্রবার ১১ জুন তৃণমূল ভবনে গিয়ে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দেন।

এসময় তাকে স্বাগত জানান তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। যোগদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তৃণমূলের যোগদানের প্রতিক্রিয়ায় মুকুল রায় বলেন, বিজেপিতে থাকতে না পেরেই ফিরে এসেছি। বিজেপি করব না বলেই পুরনো দলে ফিরেছি।

মুকুলের প্রত্যাবর্তনে তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ঘরের ছেলে ঘরে ফিরল। আগামী দিনে আরও অনেকেই দলে ফিরে আসবেন, এমনই ইঙ্গিত দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে যারা নোংরামির সীমা ছাড়িয়েছে, দলে তাদের নেওয়া হবে না।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ এইটিনের খবরে বলা হয়, বিজেপির সর্বভারতীর সহসভাপতি। বিজেপিতে যে পদের গুরুত্ব অসীম। আর তাই মুকুল রায়ের বিজেপি ত্যাগে দিল্লিতেও আলোড়ন পড়ে গিয়েছে।

এর আগে থেকেই বিধায়ক হিসাবে শপথগ্রহণের পর তার গতিবিধিতে প্রশ্ন তৈরি হয়েছিল। ওইদিন শপথগ্রহণের পর বিজেপির পরিষদীয় দলের বৈঠকে যোগ দেননি তিনি। পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলেও কোনও কথা বলেননি তিনি। যার ফলে নতুন জোর পেয়েছে তাঁর তৃণমূলে যোগদানের জল্পনা। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির হারের পর থেকেই মুখে কুলুপ এঁটেছেন মুকুল। কৃষ্ণনগর উত্তর কেন্দ্র থেকে নিজে ভোটে জিতলেও ছেলে শুভ্রাংশু হেরেছেন বীজপুর থেকে। তবে ভোট যত গড়িয়েছে ততই সুর নরম হয়েছে মুকুলের। এর মধ্যে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে মুকুলের প্রশংসাও শোনা যায়। ভোটের ফল প্রকাশের পর তার নীরবতায় নতুন করে জল্পনা শুরু হয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, বিধানসভায় মাত্র ২০ মিনিট ছিলেন মুকুল রায়। শপথ নিয়ে বেরিয়ে যান তিনি। বেরোনোর পথে দেখা হয় তৃণমূল নেতা সুব্রত বক্সির সঙ্গে। সৌজন্য বিনিময় করেন একদা তৃণমূলের দুই মূল কাণ্ডারি।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ