আজ বুধবার, ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

‘তিনি পাকা খেলোয়াড় ছিলেন’

নবকুমার:

রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি , বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর প্রিয় খেলা ছিলো ফুটবল। তিনি পাকা খেলোয়াড় ছিলেন। রাজনীতিতেও তিনি পাকা ছিলেন। বঙ্গবন্ধু কখনো হারেনি। তিনি সমগ্র বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন। তিনি আমাদের স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছে। বঙ্গবন্ধু জীবন দিয়ে প্রমাণ করেছেন তিনি বাঙালিদের কত ভালোবেসেছেন। বঙ্গবন্ধুর নাম বাঙালিদের হৃদয় থেকে মুছে ফেলা যাবে না। তিনি অমর হয়ে আছেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, যুব সমাজকে মাদক থেকে রক্ষা করতে হলে খেলাধুলার বিকল্প নেই। বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফুটবল খেলার জন্য বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ১৯ মে মুড়াপাড়া কলেজ মাঠে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা শেষে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক এমপি এসব কথা বলেন।

খেলায় দাউদপুর ইউনিয়নকে ৫-৪ গোলে হারিয়ে ভোলাবো ইউনিয়ন জয়লাভ করেছে। মুড়াপাড়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে আয়োজিত এ খেলায় বিজয়ী দলের পক্ষে গোল করেন ফাহিম, শিমুল, ফারহান, সাজ্জাদ ও জাহিদ। ম্যান অব দা ম্যাচ নির্বাচিত হয় দাউদপুর ইউনিয়নের খেলোয়াড় নাদিম মাহমুদ। ম্যান অব দ্যা টুর্র্নামেন্ট নির্বাচিত হয় ভোলাবো ইউনিয়নের খেলোয়াড় সোহাগ। টুর্নামেন্টে রূপগঞ্জের ৭টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভার মোট ৯টি দল অংশ নেয়।
পুরস্কার বিতরণী সভায় সভাপতিত্ব করেন রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ নুসরাত জাহান। এসময় রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা, রূপগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আতিকুল ইসলাম, রূপগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শীলা রাণী পাল, রূপগঞ্জ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন, রূপগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম.এ মোমেন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মকবুল হোসেন প্রমুখ। পরে বিজয়ী দলের হাতে গোল্ডকাপ তুলে দেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক ।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ