১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, রাত ২:৩২

তল্লায় গ্যাস বিস্ফোরণে দগ্ধ ১১,ভবন সিলগালার নির্দেশ

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানার তল্লা জামাই বাজার এলাকা একটি ভবনে গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে নারী ও শিশুসহ দুই পরিবারের ১১ জন দগ্ধ হয়েছেন। শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) ভোর ৬টার দিকে একটি তিনতলা ভবনে এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন, মো. হাবিবুর (৪০), তার স্ত্রী আলেয়া বেগম (৩৮), তার ছেলে লিমন (১৭), মেয়ে মিম (১৮), তিন মাসের শিশু মাহিরা। মো. সোনাহার (৪০), তার স্ত্রী শান্তি আক্তার (৩০), ছেলে সামিউল (২৫), পুত্রবধূ মনোয়ারা (২২) ও সাথী (২৫)।
দগ্ধদের মধ্যে তিন মাসের শিশুসহ ৬ জনকে গুরুতর অবস্থায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
বিস্ফোরণে তৃতীয় তলার ফ্ল্যাটের দুটি দেয়াল উড়ে গিয়ে পাশের ভবনের ছাদে পড়েছে, ভেঙে গেছে ভবনের দরজা-জানালার কাচ।
নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফিন এই তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ভবনের তৃতীয় তলায় গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মুস্তাইন বিল্লাহ দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ সময় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর কর্মকর্তা, তিতাস গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড এর কর্মকর্তা, ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, নারায়ণগঞ্জ এর কর্মকর্তাসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।
দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে আহ্বায়ক করে সাত সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার, নারায়ণগঞ্জ সদর কমিটির সদস্য সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। কমিটিকে সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করেছেন জেলা প্রশাসক ।

ইতোমধ্যে দুর্ঘটনাস্থল এর ক্ষতিগ্রস্ত ভবনটি সিলগালা করে দেওয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে এবং অগ্নিদগ্ধদের সরকারি সহায়তা প্রদানের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ