আজ রবিবার, ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রাজপথ কাপিয়ে ঢাকায় শান্তি সমাবেশে পাপ্পা গাজী


টি.আই.আরিফ

আওয়ামী লীগের তিন সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যোগে বিএনপি-জামায়াতের হত্যা, ষড়যন্ত্র ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে ঢাকায় আয়োজিত শান্তি সমাবেশে রূপগঞ্জ থেকে হাজার হাজার দলীয় নেতাকর্মী সমর্থকদের নিয়ে যোগ দিয়েছেন রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, মন্ত্রীপুত্র গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা। গতকাল রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি , বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীকের নির্দেশে মন্ত্রীপুত্র দলীয় নেতাকর্মী,সমর্থকদের সাথে করে বিশাল মিছিল নিয়ে শান্তি সমাবেশে যোগদান করেন। এসময় রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা শ্লোগানে মুখোরিত করে তোলে গোটা সমাবেশস্থল। মিছিলকারীরা বলেন, রূপগঞ্জের মহাবীর গাজী গোলাম দস্তগীর—-। শেখ হাসিনার সরকার বার বার দরকার–। গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পার এ মিছিল দেখে মুগ্ধ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।
দুপুর আড়াইটার দিকে রাজধানীর জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকারমের দক্ষিণ গেটে শান্তি সমাবেশে বিশাল মিছিল নিয়ে স্লোগান দিতে দিতে সমাবেশস্থলে আসেন বিসিবির পরিচালক গাজী গোলাম মর্তুজা।
তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় গণমাধ্যমকে মন্ত্রীপুত্র বলেন, ঢাকায় আওয়ামীলীগের যেকোন সমাবেশে রূপগঞ্জ থেকে আমরা সাপোর্ট করে আসছি। আমরা রাজপথে আছি। জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করে আমরা ঘরে ফিরবো। কোন অপশক্তির কাছে আমরা মাথানত করবো না। আমরা শান্তির পক্ষে। কেউ সহিংসতা করলে আমরা তার উচিত জবাব দেবো। জননেত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী নির্বাচন হবে।
প্রসঙ্গত আওয়ামী লীগের ঢাকায় যেকোন কর্মসূচি সফল করার জন্য রূপগঞ্জ থেকে গাজী পরিবার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এরআগে নারায়ণগঞ্জ থেকে সবচেয়ে বড় মিছিল নিয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে যুবলীগ,ছাত্রলীগের সমাবেশে যোগদান করেন মন্ত্রীপুত্র গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা। তার মিছিল দেখে তখন দলটির কেন্দ্রীয় নেতারাও তার প্রশংসা করেন।
গতকাল বিএনপির সমাবেশ ঘিরে রূপগঞ্জের রাজপথ দলে রাখেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক।

মন্ত্রীপুত্র গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা আরও জানান, সমাবেশের নামে বিএনপি, জামায়াতকে কোন প্রকার নৈরাজ্য করতে দেওয়া হবে না। আমরা মাঠে থাকতে কোন অপশক্তি সফল হবে না। রূপগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ মাঠে প্রস্তুত আছে।

এছাড়া শাসক দলের জনপ্রতিনিধিরাও যার যার এলাকায় সতর্ক রয়েছে। দলটির নেতারা জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ