আজ বৃহস্পতিবার, ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

চ্যালেঞ্জে বাবু, মাঠে মমতাজ

সংবাদচর্চা রিপোর্ট :
নারায়ণগঞ্জ জেলার পাঁচটি সংসদীয় আসনের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে একক ব্যক্তির কর্তৃত্ব, হুকুমত কায়েম হয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। এখানে তিনি যে সিদ্ধান্ত নিবেন বা দিবেন তাই যেন সবার জন্য শীরধার্য। গত ১৭ বছর ধরে আড়াইহাজার উপজেলায় এমপি নজরুল ইসলাম বাবুর বাইরে গিয়ে কেউ কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি। বর্তমানে তিনি জাতীয় সংসদের হুইপ হওয়ার পর সেই প্রভাব যেন আরও বেশি বেড়েছে।
তবে, দীর্ঘদিন পর হলেও এবার আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাচনকে সামনে রেখে নজরুল ইসলাম বাবু বিরোধী শিবির একাট্টা হয়ে মাঠে নেমেছেন। এর নেতৃত্বে রয়েছেন সাবেক রাষ্ট্রদূত মমতাজ হোসেন। স্থানীয় নেতাকর্মীদের অনেকের দাবি, ক্লিন ইমেজের কারণে আড়াইহাজার উপজেলাজুড়ে তার আলাদা একটি ইমেজ রয়েছে। তিনি স্থানীয় নেতাকর্মীদের কাছে প্রিয়মুখ। এবার তিনি নজরুল ইসলাম বাবুর সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করে প্রকাশ্যেই মাঠে নেমেছেন। তিনি আড়াইহাজার উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান শাহজালাল মিয়ার পক্ষে মাঠে নেমেছেন।
দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় এমপির বিরুদ্ধে এভাবে প্রকাশ্যে কোনো নেতাকর্মীরা নামতে পারেনি। এবারই সেই নীরবতা ভেঙে মমতাজ হোসেনের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা একজোট হয়ে মাঠে নেমেছেন এমপি বাবুকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে।
সূত্র জানায়, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ তথা প্রধানমন্ত্রীর কাছে আলাদা একটি গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে মমতাজ হোসেনের। তিনি আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে ২০০২ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত শেখ হাসিনার বিশেষ সহকারীর দায়িত্ব পালন করেন। তিনি অত্যন্ত দক্ষতা ও বিশ্বস্ততার সঙ্গে তার দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এছাড়াও তিনি ১৯৯৭ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ব্রুনাইয়ে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করে সুনাম অর্জন করেছিলেন।
স্থানীয় সূত্র জানায়, আড়াইহাজারে দীর্ঘ পনের বছর ধরেই বাবুর একক কর্তৃত্ব জারি রয়েছে। এখানে বাবুর সিদ্ধান্তই সবার শীরধার্য। তার সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে কেউ স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বা মেম্বার প্রার্থীও হতে পারেন না। তিনি যাকে পছন্দ করে দিবেন তিনিই প্রার্থী হবেন। দীর্ঘদিন ধরে এখানে তাই হয়ে আসছে। তবে এবার এমপি বাবুর কর্তৃত্ব খর্ব করার লক্ষ্যেই স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীরা একাট্টা হয়ে শাহজালাল মিয়াকে নিয়ে মাঠে নেমেছেন। তিনি উপজেলা নির্বাচনে দোয়াত-কলম প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
সূত্রে জানা গেছে, মমতাজ হোসেনের নেতৃত্বে শাহজালাল মিয়ার পক্ষে মাঠে নেমেছেন উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান হেলো সরকার, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিব মোল্লা, মুক্তিযোদ্ধা জুলকারনাইন ডালিম প্রমূখ।
সূত্র জানায়, আগামী ২১ মে আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। এই নির্বাচনে নজরুল ইসলাম বাবু সমর্থন করেছেন সাইফুল ইসলাম স্বপনকে। তিনি আলোচিত পুলিশ কনস্টেবল রুবেল হত্যা মামলার আসামি। স্বপনকে হুইপ বাবু শুধু সমর্থন করেছেন তা নয় তিনি স্বপনকে জয়ী করাতে স্থানীয় পর্যায়ে ব্যাপক প্রভাব বিস্তার করছেন বলেও শোনা যাচ্ছে। সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে দোয়াত কলমের প্রার্থী শাহজালাল মিয়া নির্বাচন কমিশনে অভিযোগও দাখিল করেছেন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ