আজ বুধবার, ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

চাষাড়ায় বিএনপির সমাবেশে মুগুরবাদ শ্লোগান

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

চাষাড়ায় বিএনপির সমাবেশ থেকে আওয়ামী লীগ সরকার ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কড়া সমালোচনা করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর। তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীদের মুগুরবাদ শ্লোগান শিখিয়েছেন। সমাবেশে আগত বিএনপি,যুবদল ,ছাত্রদল,স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা তার সাথে মুগুরবাদ শ্লোগান দেয়।
দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বলেন , আর নয় প্রতিবাদ , চলবে এবার মুগুরবাদ। প্রতিবাদ করে লাভ নাই। সুন্দর কথা হাসিনা শোনে না। প্রতিরোধ তো করতেই হবে। সাথে প্রয়োজনে মুগুরবাদের ব্যবস্থা করতে হবে। এ হল বক্তব্যের সারমর্ম।

শনিবার (১৪ মে) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে দলের কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে জেলা ও মহানগর বিএনপির সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
বিএনপির ওই নেতা জানান মুগুর মানে পিটায় যেটা দিয়ে। কাঠ বা লোহার তৈরী বড় হাতুড়ির মত জিনিস।
এদিকে বিএনপির সমাবেশ থেকে মুগুরবাদ শ্লোগান দেওয়ার পর নেতাদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা সংবাদচর্চাকে জানান, বিষয়টা প্রশাসনকে দেখতে হবে। সমাবেশের নামে বিএনপি নেতারা উস্কানিমূলক বক্তব্য দেবে তা চলবে না। নারায়ণগঞ্জে এসে জাতির পিতার কন্যার নামে উল্টাপাল্টা কথা বললে আমরাও চুপ থাকবো না।
নেতারা আরও বলেন, বিএনপি নেতারা এখন নিজেরাই মারামারি করছে। মামুন মাহমুদকে ওরা কারা ছুরিকাঘাত করছে। গিয়াস উদ্দিনের ছেলেদের নামে কে মামলা করছে? তাদের সব খবর বেরি আসছে। তারা মাঠে তো নামতে পারে না, ঢাকার নেতারা আসলে তাদের সামনে গুটি কয়েকজন বড় বড় কথা কয়। তারা চলে গেলে সবাই আবার বিড়াল হয়ে যায়।

এসময় বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ , জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মনিরুল ইসলাম রবি ,যুগ্ম আহবায়ক জাহিদ হাসান রোজেল ,মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এড. আবু ইউসুফ খান টিপু , মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খান, জেলা যুবদলের আহবায়ক গোলাম ফারুক খোকন, সদস্য সচিব মশিউর রহমান রনি, মহানগর যুবদলের আহবায়ক মমতাজ উদ্দিন মন্তু, সদস্য সচিব মনিরুল ইসলাম সজল, জেলা সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আনোয়ার সাদাত সায়েম, সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুর, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি শাহেদ আহমেদসহ জেলা, উপজেলা ও থানা বিএনপির নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ