আজ সোমবার, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

গোলাকান্দাইলে স্ট্রোকের রোগীকে পিটিয়ে জখম

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

যৌতুকের দাবিতে রূপগঞ্জের গোলাকান্দাইলে স্ট্রোকের রোগী শাহনাজ আক্তারকে পিটিয়ে জখম করেছে তার স্বামী সুমন মিয়া। গত ৬ আগস্ট বিকালে গোলাকান্দাইল নীল ভিটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এব্যাপারে আহত শাহনাজ আক্তার মঙ্গলবার ( ১০ আগস্ট) রূপগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে শাহনাজ আক্তার তারাব পৌরসভার খাদুন এলাকার ওয়াকিবুর রহমানের মেয়ে। ২০০২ সালে গোলাকান্দাইল ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের মৃত খোরশেদ মিয়ার ছেলে সুমনের সাথে শাহনাজ আক্তারের বিবাহ হয়। তাদের তিনটি সন্তান রয়েছে। স্বামীর নির্যাতনে শাহনাজ আক্তার স্ট্রোক করে। তাকে চিকিৎসা করে সুস্থ করে তার বাবা ওয়াকিবুর রহমান। ওয়াকিবুর রহমান মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে সুমনের বাড়ীতে সাত লাখ টাকা খরচ করে বিল্ডিং ঘর ,ফ্রিজ, আসবাবপত্র প্রদান করে।

গত ৬ আগস্ট সুমন ৪ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করলে তা দিতে অপরাগত প্রকাশ করে শাহনাজ আক্তার। এরপর আসামি সুমন মিয়া পিটিয়ে জখম করে। তার শ্বাশুড়ি রওশনারা বেগম তার চুলের মুঠি ধরিয়া নাকে, মুখে, পেটে কিল -ঘুষি ,লাথি মারিয়া নীলাফুলা জখম করে। সন্তানদের রেখে এক কাপড়ে শাহনাজকে বাড়ি থেকে বের করে দেয় তারা। পরে আহত শাজনাজকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে তার বাবার বাড়ী পাঠিয়ে দেয়। এছাড়া শাহনাজের ভাইদের মোবাইলে হুমকি দেয় সুমন। এসবের সুষ্ঠু বিচার চেয়েছে শাহনাজ আক্তারের পরিবার। মঙ্গলবার অভিযোগটি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন রূপগঞ্জ থানার ওসি।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ