আজ রবিবার, ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘কোন বাঁধা নেই’

টি.আই.আরিফ:

চব্বিশের ভোটকে ঘিরে রূপগঞ্জকে বাড়তি গুরুত্ব দিচ্ছে শাসক দল। চলতি বছরেই আপাতত দুইবার রূপগঞ্জে এসেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি একের পর এক মেগা প্রকল্প যুক্ত করছেন। রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীককে বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দিয়ে গেলেন। দলনেত্রীর জন্য মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী। তিনি সবার খোঁজ খবর নিচ্ছেন। রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ ,অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা তার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ। তাকেই প্রার্থী হিসেবে প্রচার করছে দলটির নেতাকর্মীরা। ষড়যন্ত্রকারীরা তাকে ঠেকাতে গিয়ে বিপাকে। জাতীয় নির্বাচনের আগে সুধী সমাবেশকে মহাসমাবেশে রূপ দিয়ে নিজের অবস্থানের জানান দিলেন রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক,এমপি। গত ২ ফেব্রুয়ারি রূপগঞ্জের পূর্বাচলে বাংলাদেশের প্রথম পাতাল মেট্টোরেল এমআরটি লাইন-১ এর নির্মাণ কাজ উদ্বোধন উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সমাবেশে এতো লোক দেখে মুগ্ধ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। গাজীকে আকার-ইঙ্গিতে বোঝালেন প্রধানমন্ত্রী। কাদের বলেন, বেশি নেতার দরকার নেই। গাজী সাহেব আছেন। ডিসেম্বরে ফাইনাল খেলা।

রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেন, আমাদের দলের মধ্যে গণতন্ত্র আছে। এতে কোন বাঁধা নেই। আমার সাথে রূপগঞ্জের জনগণ আছে। সবাই উন্নয়ন দেখে পক্ষ নেবে। আগামী নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনা পুনরায় ক্ষমতায় যাবে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ