১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, রাত ৪:৪২

কত বিক্রি হয় আলীগঞ্জ হাটে!

সংবাদচর্চা অনলাইন:

করোনাকালে সংক্রমনের ঝুঁকি এড়াতে এবার কোরবানীর অস্থায়ী হাট বাসনোর অনুমিত দিয়ে ইজারা দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। তবে এবার হাটের সংখ্য কমেছে। গত বছর ১৭টি হাট বসলেও এবার ১১টি হাট বসবে সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন। ১১টি হাটের মধ্যে সর্বচ্চো ধরে বিক্রি হয়েছে কুতুবপুর ইউনিয়নের আলীগঞ্জ নদীরপাড়ে মৃত হাফেজ মোক্তার এর নিজস্ব ভূমির হাটটি।

আগের বছরগুলোতে এ হাটটি পডব্লিউডির’র খালি জায়গার বসানো হলেও এবার স্থান পরিবর্তন করা হয়েছে। নির্ধারিত মূল্য ৩৯ লাখ টাকা হলেও বিক্রি হয়েছে ৭০ লাখ টাকায়। গত বছর পডব্লিউডির’র অস্থায়ী পশুর হাট ১ কোটি ১৫ লাখ ৫শ’ টাকায় কিনে আলোচনা সৃষ্টি করা নারী জনপ্রতিনিধি ফাতেমা মনির ৭ লাখ টাকার জন্য এবার আলীগঞ্জে হাট বসাতে পারেনি। তবে, এবারের পরিস্থিতিতে ৭০লাখ টাকায় হাট নিয়ে সেখানে ব্যবসা করা যাবে কিনা সেই নিয়েই সবার মনে প্রশ্ন। প্রশ্ন উঠে একটি হাটে কত লাভ। আলীগঞ্জে কত টাকা বিক্রি হয়?

হাটের ইজারা ব্যবসার সাথে জড়িত কয়েকজন জানান, একটি হাটের জন্য সরকারী দরপত্রের মূল্য, তার সাথে ভ্যাট পরিশোধ করতে হয়। রয়েছে হাটে বাঁশ খুঁটি আর প্যান্ডেল খরচ। সেই সাথে হাট পরিচালনায় রাখতে হয় অনেক সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক। আরও আছে প্রচার প্রচারণা, মাইকিং, বিদুৎ, স্থানীয় গণ্যমান্যদের অদৃশ্য খরচ, নিরাপত্তাকর্মী খরচ। এতো খরচের পর পর্যাপ্ত গরু হাটে উঠানোর চ্যালেঞ্জ। তার পর গরু বিক্রির উপর নির্ভর কতটুকু লাভ হবে। সেই হিসেবে আলীগঞ্জের ওই হাটের ইজারা মূল্য সত্যি রহস্যজনক।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ