আজ মঙ্গলবার, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘এমপি-মন্ত্রীর ছেলের মতো আচরণ দেখাইনি’

নবকুমার:

‘শীত শেষ হলে শীতের পাখিরা থাকে না। গত ১৪ বছর কারও সাথে কোনদিন বেয়াদবি করি নাই। এমপি,মন্ত্রীদের ছেলের মতো আচরণ আমি দেখাইনি। সবার সেবা করতে এসেছি। ভালো সব সময় ভালো। খারাপ, মিথ্যুক এবং যারা শীতের পাখি তাঁরা আসবে ,আমাদেরকে বিরক্ত করবে এবং সময় মতো পালিয়ে যাবে। আমরা শপথ নিলে শীতের পাখি কিছুই করতে পারবে না’। গত ১২ মার্চ বরপা এলাকায় এক অনুষ্ঠানে রূপগঞ্জবাসীর উদ্দেশে এসব কথা বলেন রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা ।
তিনি বলেন, আপনার একটা শিক্ষিত রূপগঞ্জ দেন নৌকার ভোটের অভাব হবে না। তাঁরাই ভোট দেবে। জননেত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষিত প্রধানমন্ত্রী। গোলাম দস্তগীর গাজী সাহেব একজন শিক্ষিত মানুষ। তিনি শিক্ষিত রূপগঞ্জ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। মানুষ থাকলে আমার বাবা-মা সুস্থ, মানুষ না থাকলে অসুস্থ। আপনাদের ভালোবাসা চাই। আপনারা আমার বাবা,মাকে ছেড়ে দিলে মরে যাবে। আমরা এতিম হয়ে যাবো। আমার বাবা,মার জন্য আমি বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চাই। আর কোন কারণ নাই। গাজী সাহেবকে হারাবেন না। এবার নির্বাচনে আমাদের শ্লোগান ‘কথা দিয়েছিলাম কথা রেখেছি’। মুড়াপাড়ায় ফেরি নাই ব্রিজ হয়েছে। ভুলতায় ফ্লাইওভার হয়েছে। অতীতে বহু এমপি ,মন্ত্রী বলে গেছে মুড়াপাড়া কলেজ সরকারী হবে না। গাজী সাহেব মুড়াপাড়া কলেজ সরকারী করে দেখিয়ে দিয়েছে। নির্বাচনের আগে অনেকেই আসবে তাদেরকে আপনারা বলবেন ৪ বছর কোথায় ছিলেন । আমরা সৎ মানুষকে ভোট দেবো। যারা ইতিহাস বিকৃতি করে তাদেরকে ভোট দেবো না। বিএনপি যতবার ক্ষমতায় এসেছে ইতিহাস বিকৃতির চেষ্টা করেছে। আমরা মূর্খ প্রধানমন্ত্রী চাই না।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ