আজ মঙ্গলবার, ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৮শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

আড়াইহাজারে ককটেলসহ ৯ ডাকাত গ্রেপ্তার

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

আড়াইহাজারের মারুয়াদী বাজার এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহণকালে ধারালো অস্ত্র ও ককটেলসহ সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্র সবুজ বাহিনীর ৯ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১ (সিপিএসসি) । গ্রেফতারকৃতরা হলো ডাকাত চক্রের গ্যাং লিডার মোঃ সবুজ (২৮), গ্যাং লিডার মোঃ সাখাওয়াত হোসেন রনি (২৪), মোঃ সোহেল ওরফে ইসমাইল (৩০), মোঃ আবুল কাশেম (৩৩), মোঃ মিজান (২২), মোঃ ওমর ফারুক (২৫), মোঃ সোহেল (২৮), মোহাম্মদ রবিউল শেখ (২৪), মোঃ জাহাঙ্গীর সিকদার (৩৮)। ১২ মে রাতে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ডাকাত চক্রটি গত ৬ এপ্রিল এবং ২৪ এপ্রিল আড়াইহাজার থানা এলাকায় সংঘটিত ডাকাতির ঘটনায় জড়িত ছিল মর্মে প্রাথমিক জিজ্ঞাসবাদে জানা যায়। গ্রেফতারকৃত আসামীদের হেফাজত হতে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ৭টি ককটেল, ২টি রামদা, ৪টি ছোড়া, ২টি শাবল, ১টি চাইনিজ কুড়াল, ১টি তালা কাটার, ২টি তরবারী ও ৫টি টেটা উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও ডাকাতি হয়ে যাওয়া ১টি মোবাইল ফোনও উদ্ধার করা হয়। ডাকাতি করা টাকাগুলো এবং লুট করা স্বর্ণালংকারগুলো উক্ত গ্যাং এর সদস্যগণ ভাগ বাটোয়ারা করে নেয়। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে আড়াইহাজার ও সোনারগাঁ থানায় একাধিক ডাকাতি ও মাদক মামলা রুজু রয়েছে। এর মধ্যে গ্রেফতারকৃত ১নং ও ৩নং আসামীদের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালত কর্তৃক একাধিক গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে।

শুক্রবার এসব তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১১। র‌্যাব জানান, গ্রেফতারকৃতরা সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের সক্রিয় সদস্য এবং তারা দীর্ঘদিন যাবৎ আড়াইহাজার থানা এলাকায় বিভিন্ন প্রবাসীদের বাড়িতে অথবা বিভিন্ন ব্যবসায়ী বা আর্থিকভাবে স্বচ্ছল পরিবারগুলোকে টার্গেট করে পরিকল্পিতভাবে তাদের ডাকাতি কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। গভীর রাতে আড়াইহাজারের বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে অতর্কিতভাবে হাজির হয়ে ধারালো অস্ত্র প্রদর্শন করে জনমনে ভয়ভীতি ও আতঙ্ক সৃষ্টি করে সাধারণ লোকজনদের জিম্মি করে ডাকাতি করে সিএনজি/মোটরসাইকেলযোগে দ্রুততার সাথে ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যায়। দুষ্কৃতিকারী এই ডাকাত দলের সদস্যরা ডাকাতি করতে গিয়ে জনসাধারণকে মারধর, ছুরিকাঘাত ও গাড়ি ভাংচুরসহ গুরুতর জখম করে থাকে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ