আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আইভীকে উৎখাতের হুমকি

সংবাদচর্চা রিপোর্ট :
নারায়ণগঞ্জে হেফাজতের ইসলামের স্থানীয় এক নেতার বিরুদ্ধে মামলা করায় সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীকে উৎখাত করার হুমকি দিয়েছেন মাওলানা আব্দুল আউয়াল। তিনি হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির নায়েবে আমীর ও উলামা পরিষদের সভাপতি।
গতকাল বিকেলে নগরীর ডিআইটি কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আইভীর ক্ষমতা আল্লাহ টিকিয়ে রাখবেন না বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
হেফাজতে ইসলামের নেতা মাওলানা আব্দুল আউয়াল বলেন, দুই মাস আগে মসজিদে নামাজ চলাকালে রাসেল পার্কের ভেতরে একটি অনুষ্ঠানে সেখানে বিকট শব্দে গানবাজনা করা হচ্ছিল। তখন নামাজ শেষে মুসল্লিরা গিয়ে সেখানে ভাঙচুর করলে পুলিশ সেখানে যায়। পরদিন বিষয়টি সমাধান হয়ে যায়। সেই ঘটনায় এখন সিটি করপোরেশন মামলা করেছে। এতে হেফাজত নেতা ফেরদৌসুর রহমানকে আসামি করা হয়েছে; অথচ তিনি তখন নারায়ণগঞ্জে ছিলেন না।
মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে মামলার ঘোষণা দিয়ে মাওলানা আব্দুল আউয়াল আরো বলেন, আইভী তিনবার সিটি করপোরেশনের মেয়র হওয়ায় তার অহমিকা বেড়ে গেছে। আইভী অহংকারী হয়ে গেছে, তাই যা মন চায় তাই করছে। ঘুঘু দেখেছো, ফাঁদ দেখো নাই। ডিআইটি মসজিদ তার মাথা ব্যথার কারণ হয়ে গেছে। আইভী এখন চাচ্ছে মসজিদগুলো দখলে নিয়ে তার মতাবলম্বীদের আস্তানা গড়ে দিতে। আমরা আমাদের আকিদা নিয়ে থাকবো, তোমার আকিদা নিয়ে তোমরা থাকো। আমাদের আকিদা বিশ্বাস নিয়ে তুমি কেন টানাটানি করছো। আমার মিলাদ করি না কারণ আজ পর্যন্ত কোনো ওলামায়ে ক্বেরাম এর প্রমান করতে পারে নাই। আমরা না করলে তোমার কী। তুমি চাচ্ছো মসজিদগুলো দখল করে তোমার বেদাতী মৌলবিদের আস্তানা গড়ে দেওয়ার চেষ্টা করছো। মামলা আমরাও করবো, আদালত তোমার বাবার না, এটা জণগনের। আমাদের লোকেদের মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করার জন্য তোমার বিরুদ্ধে মামলা করবো। পৌরসভার কোটি কোটি টাকা চুরি করা হচ্ছে। তোমরা চুরি করে আমাদেরকে চোর বলছো। ওলামাদের বিরুদ্ধে জুলুম করলে আল্লাহ আইভীর ক্ষমতা টিকিয়ে রাখবে না। তোমরা চোখ রাঙালে আমরাও চোখ রাঙাবো। যাদের সহযোগিতা করার করো, আমাদের নিয়ে মাথা ঘামানোর দরকার নেই।
হুঁশিয়ারী উচ্চারন করে তিনি বলেন, আজ এই দোকান বা জায়গার যে টাকা আসছে, সেগুলো আমার বা কমিটির পকেটে যাচ্ছে না। মসজিদের উন্নয়নের কাজে লাগছে। চাইলে আমাদের হিসাব দেখতে পারেন। মসজিদের জায়গা ভাঙতে আসলে লাশ পড়ে যাবে। তুমি (আইভী) তোমার কাজ করছো, আমাদের আমার কাজ করতে দাও। ঘাড়ে চেপে বসলে, আমরা জীবন থাকতে তোমাদের ছেড়ে দেবো না। প্রয়োজনে আমরা আরও বৃহত্তর সম্মেলনের ডাক দেবো।
এছাড়া পার্কের ভেতরে অপকর্ম চলে দাবি করে হেফাজতের এই নেতা বলেন, মেয়র আইভী এখানে চারুকলার ভেতরে পার্ক করলেন, তারপর এখন রেস্টুরেন্ট বানিয়েছেন। এরই মধ্যে এখানে মিনি পতিতালয় শুরু হয়ে গেছে। এখানে নারী-পুরুষরা অবাধে মেলামেলা করছে, যা আশপাশের কয়েকটি মসজিদের মাঝখানে। এটা নারায়ণগঞ্জে মানুষ কোনোভাবেই সহ্য করবে না।
প্রসঙ্গত, গত ১০ ফেরুয়ারি নারায়ণগঞ্জের শেখ রাসেল পার্কের অবস্থিত পার্কল্যান্ড রেস্তরার সামনে এসএসসি-৯৫ ব্যাচ একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে সেখানে একদল লোক হামলা করে ভাংচুর চালায়। সেই ঘটনার প্রায় দুই মাস পর গত ৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের আইন কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বাদি হয়ে নারায়ণগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।
এতে হেফাজতে ইসলামের নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সভাপতি ফেরদৌসুর রহমানকে প্রধান আসামিসহ শতাধিক অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়। মামলার আসামিদের বিরুদ্ধে অনুষ্ঠানের সাউন্ড সিস্টেম পরিচালনাকারীকে মারধরসহ ১০ লাখ টাকার মালপত্র ক্ষতি ও ৩ লাখ টাকার জিনিস চুরির অভিযোগ আনা হয়েছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ