১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, বিকাল ৫:২৪

মধ্যচরের রাস্তা নদীতে!

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার আলীরটেক ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার মধ্যচর গ্রাম হয়ে গোপচর ঘাট পারাপারের সড়কের এক অংশের ১০ ফুট ভেঙে গেছে। বর্ষায় নদীর ঢেউয়ে এ অবস্থা হয়েছে। এতে করে চলাচলে মানুষের ভোগান্তি বেড়েছে। ইট বিছানো এ সড়কটি বেহাল অবস্থায় পরে থাকলেও  এলাকা বাসির অভিযোগ , জনপ্রতিনিধিদের এ সড়ক দিয়ে চলাচল করতে হয় না। তাই এদিকে নজর নেই তাদের। 

স্থানীয়বাসিন্দা জানান, আলীরটেক ও গোগনগর সৈয়দপুর এলাকার লোকদের এদিক দিয়ে চলাচল হয়। এই অঞ্চলের বেশিরভাগ মানুষ কৃষি কাজ করে জীবন পরিচালনা করে। প্রতিদিন হাজারো মানুষের যাতায়াত এ সড়কে। ১২ ফুট রাস্তা হলেও নদীর ধারে ভাঙ্গনে ১০ ফুট না থাকায় মাত্র ২ ফুট সড়ক দিয়ে মানুষের যাতায়াত করতে হয়। প্রায় সময় একটু হোচট খেলে ওই ব্যক্তিকে গড়িয়ে পানিতে পরতে হয়। 

গোপচর এলাকার বাসিন্দা হারুন রশিদ জানান, আলীরটেক ও গোগনগর ইউনিয়নের প্রায় ১০ হাজার মানুষের চলাচল হয় এই রাস্তা দিয়ে। নদী পারাপারে অতিরিক্ত ভাড়ার সাথে সাথে এখন যাতায়াতের কষ্ট বেড়েছে। সড়কের ১০ ফুট নদীর ঢেউয়ে ভেঙে গেছে। আক্ষেপ করে তিনি বলেন, কত মেম্বার চেয়ারম্যান আসলো আর গেলো কিন্তু আমাদের এই এলাকার রাস্তার উন্নয়ন হলোনা। আমরা সাধারণ মানুষ এ কষ্ট আর দুর্ভোগ থেকে রেহাই চাই।

তার পাশেই মজিবর নামে এক ব্যক্তি বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে এখানে মানুষের বসবাস শুরু হয়। এই রাস্তা দিয়ে কোনো গর্ভবতী নারীকে নেওয়ার চেষ্টা করা হলে বিপদ হয়। সড়কটি দিয়ে আমরা চলাচল করতে পারি না। কেউ হোচট খেয়ে পরে গেলে ওই ব্যক্তি আর উঠে দাড়াতে পারে না। গড়িয়ে পানিতে চলে যায়। তারপরেও ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হয়। 

আলীরটেক ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার রানা আহমেদ বলেন, পানি কমার পর চেয়ারম্যানের ওয়ান পার্সেন্ট এর টাকা দিয়ে এই রাস্তার কাজ সংস্কার করা হবে। 

জানতে চাইলে আলীরটেক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মতিউর রহমানের নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি ঢাকায় মিটিংয়ে ব্যস্ত আছি।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ