আজ মঙ্গলবার, ১০ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ভুলতা ইউপি চেয়ারম্যানকে পেটালো পুলিশ

সংবাদচর্চা রিপোর্ট :

নারায়ণগঞ্জে রূপগঞ্জের ভুলতা গাউছিয়া এলাকায় মহাসড়কের ফুটপাত দখলমুক্ত করতে গিয়ে পুলিশ ও হকারদের গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছেন ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আরিফুল হক। গত ১৫ মার্চ শুক্রবার বিকেলে উপজেলার ভুলতা গাউছিয়া মার্কেট-২ এর সামনে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বেশ কয়েকটি ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক ভাইরাল হয়।
প্রক্ষত্যদর্শীরা জানায়, গত শুক্রবার বিকেলে উপজেলার গাউছিয়া মার্কেট-২ এর সামনে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক দখল করে ৮-১০টি ভ্যানে করে আখের রস বিক্রি করছে । ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুল হক আখের রস বিক্রেতা মাসুম মিয়াকে মহাসড়ক থেকে চলে যেতে বলে। এ বিষয়ে হকার ও ইউপি চেয়ারম্যান বাকবিতন্ডায় জরিয়ে পড়ে। তখন ভুলতা ফাঁড়ির এসআই বারেকসহ পুলিশ সদস্যরা ক্ষিপ্ত হয়ে ভুলতা ইউপি চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আরিফুল হকের উপর লাঠিচার্জ করে।

এ বিষয়ে ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আরিফুল হক ভুইয়া বলেন, ভুলতা গাউছিয়া মার্কেটের সামনে মহাসড়ক দখল করে ভ্যানে করে আখের রস বিক্রি করছিলো। আমি তাকে এখান থেকে সরে যেতে বলি। সে আমার কথা শোনে না। তখন পুলিশ তার পক্ষ নেওয়ায় হকাররা ক্ষিপ্ত হয়ে আমার উপর হামলা চালায়। পুলিশও আমার উপর লাঠিচার্জ করে।

এ ঘটনায় ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতা গাউছিয়া এলাকায় হকারদের সঙ্গে ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আরিফুল হকের সঙ্গে হাতাহাতি হয়।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহসান মাহমুদ রাসেল বলেন, ভুলতা এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে যানজট নিরসনের জন্য অবৈধ ফুটপাত উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। এই অভিযানে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আরিফুল হক ভূঁইয়া আমাদের সহযোগিতা করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুল হক মহাসড়ক দখল মুক্ত করতে হকারদের মহাসড়ক ছেড়ে দিতে বললেই হকাররা তার উপর হামলা চালায়। কিন্তু পুলিশ আরিফ চেয়ারম্যানের উপর লাটিচার্জ করলো সেই বিষয়টা আমরা খতিয়ে দেখছি। এ ঘটনা জেলা প্রশাসককে জানানো হয়েছে। জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা অনুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ